জয়পুর। এখন রেলস্টেশনের কুলি থেকে মালামাল তুলতে খরচ হবে। উত্তর পশ্চিম রেলওয়ে তার চারটি রেলওয়ে বিভাগের 545টি রেলস্টেশনে পোর্টারদের ন্যূনতম মজুরি বাড়িয়েছে। এখন ন্যূনতম মজুরি 70 টাকা থেকে বাড়িয়ে 90 টাকা করা হয়েছে। এই মজুরি 40 কেজি লাগেজের উপর। এরপর যেমন পণ্যের ওজন বাড়বে বা লাগেজের সংখ্যা বাড়বে, মজুরিও একই অনুপাতে বাড়বে। কিন্তু এখন পোর্টার থেকে লাগেজ তুলতে হলে যাত্রীকে ন্যূনতম ৯০ টাকা দিতে হবে।

নর্থ ওয়েস্টার্ন রেলওয়ের সিপিআরও ক্যাপ্টেন শশী কিরণ জানিয়েছেন, মজুরির নতুন হার ২০ টাকা বাড়ানো হয়েছে। আগে এটি ছিল সর্বনিম্ন 70 টাকা। এটি এখন 20 টাকা থেকে বাড়িয়ে 90 টাকা করা হয়েছে। উত্তর-পশ্চিম রেলওয়ে, জয়পুর, যোধপুর, বিকানের এবং আজমিরের চারটি বিভাগের সমস্ত 545টি রেলস্টেশনে পোর্টার মজুরির এই নতুন হারগুলি অবিলম্বে কার্যকর করা হয়েছে।

পোর্টারদের দাবি ন্যূনতম মজুরি 120 টাকা হওয়া উচিত
তবে এই ভাড়ায় খুব একটা খুশি নয় কুলি ইউনিয়ন। তিনি এই আংশিক বৃদ্ধিকে উটের মুখে জিরার মতো বর্ণনা করেছেন। কুলিরা বলছেন, আজকের যুগে 40 কেজি পণ্যের ন্যূনতম মজুরি কমপক্ষে 120 টাকা হওয়া উচিত। উত্তর পশ্চিম রেলওয়ের মজুরি বৃদ্ধির কারণে মুদ্রাস্ফীতির এই যুগে তারা খুব একটা লাভবান হয়নি।

করোনার সময়ে সম্পূর্ণ বেকার ছিলেন
এটি লক্ষণীয় যে কোভিডের সময়, ট্রেনের চাকা বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে পোর্টাররা সম্পূর্ণ বেকার হয়ে পড়েছিল। এরপর ট্রেনগুলো আবার ট্র্যাকে চলতে শুরু করলে প্রাণ পেয়েছে কুলিরা। যাত্রীর লাগেজ ওঠানোর বিনিময়ে কুলি কত টাকা নেবে, তা রেলওয়ের নিজের নয়, রেলওয়েই ঠিক করে। তবে এখন সময়ের সাথে সাথে কুলির সংখ্যা দিন দিন কমছে। কিন্তু কর্মরত কুলিরা কম মজুরি নিয়ে খুবই দুঃখিত।

কুলি আর্থিক অবস্থার মধ্যে বসবাস করছেন
যাইহোক, পোর্টাররা এখনও আশা করে যে আগামী সময়ে, রেল তাদের কথা শুনবে এবং তাদের মজুরি সম্মানজনক অবস্থায় থাকবে। বর্তমানে কম হচ্ছে ঠিকই কিন্তু কুলি আগের চেয়ে বেশি রোজগার শুরু করেছে। দুর্বল আর্থিক অবস্থার মধ্য দিয়ে যাওয়া কুলিরা সন্তুষ্ট যে তাদের কাজ শুরু হওয়ার সাথে সাথে এটি আপাতত একটি বড় ব্যাপার।

ট্যাগ: ভারতীয় রেলের খবর, irctc, জয়পুরের খবর, রাজস্থানের খবর

,



Source link

Previous article‘আমরা একসঙ্গে জিতেছি… আমরা একসঙ্গে সেলিব্রেট করি’, পাকিস্তানের বিজয় উদযাপনের ভিডিও ভাইরাল
Next articleজল কর জমা দিতে কোনও সমস্যা হবে না কানপুরবাসীদের, চালু হল জলকাল মোবাইল অ্যাপ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here