হাইলাইট

নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়লে বরফ লাগালে তাৎক্ষণিক আরাম পাওয়া যায়।
নাকের পাতলা ঝিল্লি ফেটে যাওয়ার কারণে রক্তপাত হয়।

নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়া সমস্যার ঘরোয়া প্রতিকার: নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়া বা নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়া একটি সাধারণ সমস্যা যা অতিরিক্ত গরম বা পরিবর্তনশীল আবহাওয়ার কারণে হয়ে থাকে। কখনও কখনও নাকের মধ্যে উপস্থিত রক্তনালীগুলির ক্ষতি বা আঘাতের কারণেও এই সমস্যা দেখা দেয়। নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়ার কারণে অনেকেরই প্রচুর পরিমাণে রক্ত ​​কমে যায়, তাই এই সমস্যা থেকে অবিলম্বে পরিত্রাণ পাওয়া প্রয়োজন হয়ে পড়ে। যদিও নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়লে মানুষের কোনো সমস্যা হয় না, তবে দিনে দুই থেকে তিনবার রক্ত ​​পড়া স্বাস্থ্যের ওপর খারাপ প্রভাব ফেলে। নাকের আস্তরণ ফেটে যাওয়ার কারণে নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়ার সমস্যা হয়। এটি প্রতিরোধে ওষুধের চেয়ে ঘরোয়া প্রতিকার বেশি কার্যকর। আসুন জেনে নেই কি কি ঘরোয়া উপায়ে নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়া নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা যেতে পারে।

শান্ত থাকুন এবং ফোকাস করুন
ওয়েবএমডি অনুসারে নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়ার সময়, অনেকে হাইপার হয়ে যায় এবং চিন্তিত হতে শুরু করে। এতে করে অতিরিক্ত রক্ত ​​প্রবাহিত হয় এবং দুর্বলতা আসে। এমন সময়ে, শান্ত থাকার সময়, শুধুমাত্র আপনার নাকের দিকে মনোযোগ দিন। এতে করে নাকের ওপর চাপ পড়বে এবং রক্ত ​​পড়া বন্ধ হবে।

আরও পড়ুন-সামাজিক স্বাস্থ্য কি? দুর্বল সামাজিক স্বাস্থ্যের প্রভাব এবং এটি কীভাবে উন্নত করা যায় তা জানুন

আপনার নাক বন্ধ করুন এবং আপনার মুখ দিয়ে শ্বাস নিন
অতিরিক্ত পরিমাণে রক্ত ​​আসতে শুরু করলে বুড়ো আঙুল ও তর্জনীর সাহায্যে নাকের উভয় ছিদ্র বন্ধ করে দিন। এটি প্রায় 5 থেকে 10 মিনিটের জন্য করুন এবং এই সময় আপনার মুখ দিয়ে শ্বাস নিতে থাকুন। এতে নাকের ওপর চাপ পড়বে এবং সঙ্গে সঙ্গে রক্ত ​​পড়া বন্ধ হবে।

বরফ প্রশিক্ষণ না
গরমের কারণে নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়া হয়, তাই বরফ লাগালে তাৎক্ষণিক আরাম পাওয়া যায়। যখনই নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়ে তখনই নাকে এক টুকরো বরফ দিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণের মধ্যেই রক্তপাত বন্ধ হয়ে যাবে। বরফ স্নায়ুকে শিথিল করে এবং শরীরের তাপও ঠান্ডা করে।

আরও পড়ুন-চিয়া বীজ মেশানো পানি পান করুন, ওজন কমানো থেকে হজম প্রক্রিয়াও মজবুত হবে

কর্পূর ব্যবহার করুন
নাক দিয়ে রক্ত ​​পড়ার সময় কর্পূর অনেক উপকার করে। কর্পূরের গন্ধে নাক অনেকাংশে খুলে যায় এবং নোংরা রক্ত ​​একবারে বেরিয়ে আসে। এই কারণেই সর্দি লাগলেও কর্পূর ব্যবহার করা হয়।

ট্যাগ:, স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্য সমস্যা, জীবনধারা

,



Source link

Previous articleকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বাংলার শিক্ষক নিয়োগ কেলেঙ্কারিতে ইডি গ্রেপ্তার
Next articleXiaomi এর Vacuum Mop 2 Pro ভারতে লঞ্চ হয়েছে, রোবটটি এক চিমটে ঘর পরিষ্কার করবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here